এক টেস্ট খেলেই বিশ্বসেরা নাঈম হাসান

429

চট্টগ্রাম টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক হয় নাঈম হাসানের। ১৭ বছর ৩৫৬ দিন বয়সী নাঈম নিজের অভিষেক টেস্টে ৫ উইকেট শিকার করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন। শুধু তাই নয়, দেশের সবচেয়ে ছোট ক্রিকেটার হিসেবে এই রেকর্ড গড়েছেন ডান হাতি এই অফ স্পিনার।

পাঁচ দিনের টেস্ট ম্যাচ তিন দিনে শেষ হওয়ায় দুই দিনের ছুটি পেয়েছেন তরুণ অফ স্পিনার নাঈম হাসান। ছুটি কাটাতে গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের বহদ্দারহাটে আছেন আগামীর সম্ভাবনাময়ী এই ক্রিকেটার।

অভিষেক টেস্টে অসাধারণ খেলা নাঈম হাসান প্রসঙ্গে বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আমাদের যে ক’জন স্পিনার, সবাই মানসম্পন্ন। যে কোনো সময় উইকেট নিতে পারে। সবাই ভালো খেলেছে। নিজের প্রথম ম্যাচে নাঈম অসাধারণ বল করেছে। ওর সামনে উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ।’

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে ১৭ বছর ২৫৭ দিন বয়সে পাঁচ উইকেট শিকার করেছেন পাকিস্তানের তারকা পেস বোলার মোহাম্মদ আমির। এছাড়া ১৬ বছর ৩০৩ দিন বয়সে পাকিস্তানের নাসিম-উল-গনি ৫ উইকেট শিকার করেছেন। তবে এই দুইজনের কেউই অভিষেকে ৫ উইকেট শিকারে নজির স্থাপন করতে পারেননি। যেটি করে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন নাঈম।

এই রেকর্ডের মধ্য দিয়ে এনামুল হক জুনিয়রের রেকর্ড ভাঙেন নাঈম হাসান। দেশেরে ক্রিকেটে এত দিন সবচেয়ে ছোট ক্রিকেটার হিসেবে এই রেকর্ডের মালিক ছিলেন এনামুল হক। তিনি ২০০৫ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে ৪৫ রানে ৬ উইকেট শিকার করে বাংলাদেশকে প্রথম টেস্ট জিতিয়েছিলেন। সেদিন এই বাঁ হাতি স্পিনারের বয়স ছিল ১৮ বছর ৩২ দিন।

চট্টগ্রাম টেস্ট সবচেয়ে কমবয়সী হিসেবে অভিষেকে ৫ উইকেট শিকার করে বিশ্বরেকর্ড গড়া প্রসঙ্গে নাঈম হাসান বলেন, ‘বোলিং করার আগে আমার কোনো টার্গেট ছিল না। আমি আমার স্বাভাবিক বোলিং করেছি। ৫ উইকেট নিতে হবে বা ১০ উইকেট নিতে হবে এরকম কিছু আমার মাথায় ছিল না। আমি শুধু চেষ্টা করেছি প্রসেসটা মেইনটেইন করার। রেকর্ডের কথা তো জানতামই না। দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর শুনেছি রেকর্ড হয়েছে।