নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

291

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা ও অপর চার  কমিশনারের নিয়োগের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। গতকাল সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী দেলোয়ার হোসেনের পক্ষে আইনজীবী ইউসুফ আলী এই রিট আবেদনটি করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, ‘হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট একটি বেঞ্চে মঙ্গলবার (আজ) এর ওপর শুনানি হতে পারে।’ তিনি জানান, রিট আবেদনে নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগ সংক্রান্ত গেজেট বাতিল চাওয়া হয়েছে। রিটে প্রধান নির্বাচন কমিশনার , অপর চার নির্বাচন কমিশনার, আইন সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

পাশাপাশি সংবিধানের ১১৮ (১) অনুচ্ছেদের শর্ত পূরণ করে সিইসিসহ অন্য কমিশনারদের নিয়োগে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন জানানো হয়েছে রিটে। এ ছাড়া সংবিধান অনুযায়ী ইসি পুনর্গঠন না হওয়া পর্যন্ত আসন্ন নির্বাচন স্থগিত চাওয়া হয়েছে বলে জানান রিটকারী আইনজীবী ইউসুফ আলী।

তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আইন প্রণয়ন করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) সহ চারজন নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দিতে হবে। কিন্তু এ বিষয়ে এখনো কোনো আইন ও বিধান হয়নি। রিটকারীর আইনজীবী আরো বলেন, ‘প্রধান নির্বাচন কমিশনার একটি সাংবিধানিক পদ।

অতীতে স্বাধীনভাবে কোনো পদে দায়িত্ব পালন করা ব্যক্তি এই পদে থাকবেন। পাশাপাশি দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে কমিশনাররা স্বাধীন থাকবেন। কিন্তু সিইসি এর আগে সরকারের আমলা ছিলেন। স্বাধীনভাবে কোনো দায়িত্ব পালন করেছিলেন বলে আমাদের জানা নেই। এখানে সিইসিকে স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালনের পূর্ব অভিজ্ঞতা ব্যতিরেকে তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এ জন্যই এই রিট আবেদনটি করা হয়েছে।’