মিস ওয়ার্ল্ডে সেরা ৩০-এ বাংলাদেশের ঐশী

564

মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার ৬৮তম আসরে বিভিন্ন দেশের প্রতিযোগীদের হারিয়ে সেরা ৩০ জনের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগের গ্রুপ সিক্সে জয়ী হয়ে তিনি পৌঁছে গেছেন সেরা ৩০-এ। শুক্রবার রাতে (৩০ নভেম্বর) মিস ওয়ার্ল্ড ফেসবুক পেজে এই তথ্য জানানো হয়। বিশ্বের ১১৮ প্রতিযোগীর মধ্যে নির্বাচিত হয়েছে সেরা ৩০। এর মধ্যে ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগের ২০টি গ্রুপের প্রতিটির বিজয়ীরা পৌঁছে গেছেন ফাইনালে। আর তাদের একজন হলেন ঐশী। ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগে কোন প্রতিযোগী কোন গ্রুপে থাকবেন তা নির্ধারিত হয়েছে ড্রয়ের মাধ্যমে। সব মিলিয়ে সাজানো হয় ২০টি গ্রুপ। অন্য গ্রুপের বিজয়ী দেশগুলো হলো মরিশাস, ফ্রান্স, ভেনেজুয়েলা, ফিলিপাইন, নাইজেরিয়া, চিলি, লেবানন, মালয়েশিয়া, গোয়াডলুপ, মিয়ানমার, ভারত, নেপাল, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, বুলগেরিয়া, মেক্সিকো, ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো, আর্জেন্টিনা ও উগান্ডা। হেড টু হেড চ্যালেঞ্জের গ্রুপ সিক্সে জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীর প্রতিদ্বন্দ্বীরাহেড টু হেড চ্যালেঞ্জের গ্রুপ সিক্সে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’ ঐশীর প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ডেনমার্কের টারা জেনসেন, ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ডসের ইয়াদালি টমাস সান্তোস, ব্রাজিলের জেসিকা কারভালহো, আয়ারল্যান্ডের ইফা ও সুলিভান ও চীনের পিরুয়ি মাও। সেখানে সেরাদের সেরা হন ঐশী। ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগের প্রথম রাউন্ডে প্রিয় প্রতিযোগীকে ভোট প্রদানের পদ্ধতি ছিল ৪টি। প্রত্যেক দেশের মিস ওয়ার্ল্ড অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে লাইক সংখ্যা, মিস ওয়ার্ল্ড ওয়েবসাইটে কন্টেস্ট্যান্টস অপশনে গিয়ে ভোট প্রদান, অফিসিয়াল মবস্টার অ্যাকাউন্টে প্রতিযোগীদের ছবিতে লাইক দেয়া ও কমেন্ট করা এবং মডেল পাওয়ার লাইভে নির্দিষ্ট লিংকে ক্লিক করে পছন্দের প্রতিযোগীকে লাইক দেয়া। আর ভোট প্রদানের শেষ সময় ছিল ২৮ নভেম্বর। এই ৪ প্ল্যাটফর্মে সেরা প্রতিযোগীরা স্থান করে নেন ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জ’ বিভাগের দ্বিতীয় রাউন্ডে। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয় ৩০ নভেম্বর বিকাল ৫টা পর্যন্ত।