আগমী ২০ডিসেম্বর পর্যন্ত চলতে পারে বৃষ্টি

479

ঘূর্ণিঝড় ফেথাইয়ের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর এখন উত্তাল। ভারতের আন্দামান সাগরের নিম্নচাপ থেকে তৈরি হওয়া এ ঘূর্ণিঝড় বঙ্গোপসাগরে এসে আরও শক্তি সঞ্চয় করে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়েছে।

ভারতে আঘাত হানা ঘূর্ণিঝড় ‘ফেথাই’ এর প্রভাবে বাংলাদেশে বৃষ্টিপাত হচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। তবে এটি বাংলাদেশের দিকে আসার তেমন কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না আবহাওয়াবিদেরা।

আবহাওয়া অফিস বলছে, আগামী বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) পর্যন্ত এ ধরনের বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে। এরপর মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাষে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দেশে ১৮ থেকে ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত আকাশ মেঘলা থাকবে ও কোথাও কোথাও হালকা বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। এদিকে, ঘুর্ণিঝড় ‘ফেথাই’-এর প্রভাবে সাগর উত্তাল রয়েছে। দেশের সমুদ্র বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সব মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

রোববার রাতে আবহাওয়ার বিশেষ বুলেটিনে বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সন্ধ্যা ৬টায় প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফেথাইয়ের অবস্থান ছিল চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ১৪১৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৩৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১২৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১২৮৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে।

এদিকে, ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর বলছে, ঘুর্ণিঝড় ‘ফেথাই’ বঙ্গোপসাগরে এসে আরো শক্তি সঞ্চয় করে পরিণত হয়েছে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে। ঘণ্টায় ৯৫ কিলোমিটার গতির বাতাসের শক্তি নিয়ে এ ঝড় ভারতের অন্ধ্র উপকূলের দিকে এগোচ্ছে।