ফুলতলায় ৪০ ভূমিহীনদের ঘর হস্তান্তর

105
জিল্লু শেখ,ফুলতলা থানা প্রতিনিধি।
প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে আজ সকাল ১০ টায় গণভবন হতে দেশের ৬৪ জেলার ৪৯২টি উপজেলার সঙ্গে সংযুক্ত হয়েছেন। ৬৬ হাজার ভূমিহীন ও গৃহহীনকে ঘর প্রদান কার্যক্রমের প্রথম পর্যায়ের শুভ উদ্বোধন করেন তিনি। প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ ও সুপেয় পানি সরবরাহের বন্দোবস্ত করা হয়েছে।
দেশের প্রতিটি মানুষ ঘর না পাওয়া পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে এই কার্যক্রম চলমান থাকবে। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা আসলেই একজন “জননেত্রী”; তাঁর রাজনীতির ফোকাল পয়েন্টই হচ্ছে “গণমানুষ”।
ফুলতলা উপজেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে মুজিব শতবর্ষে নতুন ঘরে স্থায়ী ঠিকানা পেলেন ৪০টি ভুমি ও গৃহহীন হৃতদরিদ্র পরিবার। এ সব পরিবারে প্রত্যেকের জন্য নির্মান করা হয়েছে উন্নতমানের পাকা বাড়ি। মুজিবশতবর্ষে দেশের একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন নিদের্শনার আলোকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অগ্রাধিকার ভিত্তিক প্রকল্প আশ্রায়ণ প্রকল্প -২ “ক” শ্রেণি এর আওতায় প্রথম ধাপে ফুলতলা উপজেলায় ৪০টি ঘর নির্মান করে এবং ঘরের চাবি আজকে ভুমি ও গৃহহীনদের মাঝে প্রদান করা হয়।
আজকের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব ইকবাল হোসেন, উপ-পরিচালক স্থানীয় সরকার, খুলনা জেলা। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফুলতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন, ইউএনও সাদিয়া আফরিন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুলী বিশ্বাস, ফুলতলা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দামোদর ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ মোহাম্মদ ভুঁইয়া শিপলু, ওসি মোঃ মাহাতাব উদ্দিন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ইনসাদ ইবনে আমিন, মৎস্য কর্মকর্তা রনজিত কুমার, অধ্যক্ষ মোঃ মিজানুর রহমান, সমাজসেবা কর্মকর্তা শাহীন আলম, বিআরডিবি কর্মকর্তা মোঃ আফরুজ্জামান,  আওয়ামীলীগ নেতা মোঃ আসলাম খান, মৃনাল হাজরা, প্রেসক্লাব ফুলতলা সভাপতি তাপস কুমার বিশ্বাস, উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি শামসুল আলম খোকন, সিনিয়র সাংবাদিক শেখ মনিরুজ্জামান, সহকারী অধ্যাপক মোঃ নেছার উদ্দিন, আলহাজ্ব শেখ আশরাফ হোসেন, রবিউল ইসলাম মন্টু প্রমুখ।