স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাইন মানছেন না ফুলতলার বিসমিল্লাহ অটো 

152
মোঃ আল আমিন খান
সারাদেশে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের রোগি।  এমন কি মৃত্যুবরণ ও করছে অনেকেই। সাধারন মানুষ কে সচেতন করার জন্য সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহন করেছে । দেওয়া হয়েছে কঠোর লকডাইন। খুলনা জেলা প্রশাসক মো. হেলাল হোসেন এর সঠিক দিক নির্দেশনায় খুলনা জেলায় স্বাস্থবিধী ও মাস্ক না পড়ার কারনে প্রতিদিন জেল জরিমানা করা হলেও ফুলতলা থানার মাত্র ২০ গজ সামনেই সন্ধ্যার পরেও দেখা মেলে বিসমিল্লাহ অটোর  মালিক মোঃ নেছার মোল্লা দোকানের এক সাটার বন্ধ রেখে অত্যান্ত সুকৌশলে তার ব্যবসার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। কোন খুটির জোরে সরকারী সকল নিয়ম ভেঙ্গে মাস্ক ছাড়া ও সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে এই ব্যবসায়ী কিভাবে তার ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে এ প্রশ্ন এলাকার সচেতন মহলের?
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যবসায়ী বলেন, ফুলতলা থেকে নতুনহাট সহ সন্ধ্যার পরে পুলিশের তেমন কোন টহল দিতে দেখা যায় না যার কারনেই অনেকেই সন্ধ্যার পরে সকল নিয়ম ভেঙ্গে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে এক্ষেত্রে দরকার স্থানীয় থানা পুলিশের আরো কঠোর ভূমিকা।
এ বিষয়ে মুঠোফোনে কথা হয় ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মাহাতাব এর সাথে তিনি সবকিছু শুনে বলেন বিষয়টি আপনাদের মাধ্যমে আমি জানলাম করোনা ভাইরাসের সময় এমন দৃশ্য আমরা কোন মতেই হতে দিবো না, অচিরেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে আশ্বস্ত করেন তিনি।