খুলনায় ৫৩ লাখ টাকার দু’টি চেক উদ্ধারে পুলিশের তল্লাশী

67

স্টাফ রিপোর্টার :

কেএমপি’র সোনাডাঙ্গা থানাধীন নাজিরঘাট এলাকার বাসিন্দা, প্রাক্তণ স্বামী মো. আব্দুল বাকী’র কাছ থেকে স্ত্রী কর্তৃক (স্ত্রী থাকাকালীন, বর্তমানে তালাকপ্রাপ্ত) মারধর করে জোরপূর্বক ছিনিয়ে নেয়া ৫৩ লাখ টাকার দু’টি চেক উদ্ধারে তল্লাশী অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। সোনাডাঙ্গা থানা পুলিশের একটি টিম বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) নগরীর সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার দ্বিতীয় ফেজের ৮নং রোডস্থ স্ত্রী সুলতানা পারভীন নীলার ভাড়া বাসায় এ অভিযান চালায়। তবে, চেক খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করে সোনাডাঙ্গা থানার এসআই তহিদুর রহমান বলেন, আদালতের নির্দেশেই দু’টি চেক উদ্ধারের জন্য আসামি সুলতানা পারভীন নীলার ভাড়া বাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। কিন্তু অভিযানকালে তিনি বাসায় ছিলেন না। তিনি ঢাকায় রয়েছেন বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়। এ কারণে চেক দু’টি খুঁজে পাওয়া যায়নি।
মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, একই এলাকায় বসবাসের কারণে পূর্ব পরিচয়ের সুবাদে ২০২০ সালের ৪ মে নগরীর খালিশপুর হাউজিং স্টেটের সেন্ট্রাল ব্লকের সুলতান আলমের কন্যা সুলতানা পারভীন নীলাকে বিয়ে করেন মো. আব্দুল বাকী। বিয়ের পর তিনি স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকার গুলশানে বসবাস করতেন। কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পর থেকে নীলার বেপরোয়া জীবন-যাপনসহ বিভিন্ন কারণে তার সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। এরই মধ্যে সে মনিরুল ইসলাম বর্ষণ নামে এক যুবককে নিজের খালাতো ভাই পরিচয়ে প্রায়ই বাসায় নিয়ে আসতে থাকে। এক পর্যায়ে ২০২০ সালের ২৭ জুলাই সন্ধ্যায় স্বামী আব্দুল বাকী বাসায় ফিরে দেখতে পান মনিরুল ইসলাম বর্ষণকে নিয়ে তার স্ত্রী বাইরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ সময় তিনি বাসায় প্রবেশ করলে স্ত্রী নীলা তার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করেন। কিন্তু তিনি দিতে অস্বীকার করলে তাদের মধ্যে বাক-বিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে তারা দু’জন মিলে স্বামী আব্দুল বাকী’র ওপর চড়াও হয়ে তাকে মারধর করে এবং প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘রূপসী বাংলা ট্যুরস’র ৩ লাখ টাকার ২টি চেক (সিটি ব্যাংক) এবং ট্রাষ্ট ব্যাংক লিমিটেড’র ৫০ লাখ টাকার একটি চেক জোর করে স্বাক্ষর করিয়ে নিয়ে বাসা থেকে বেরিয়ে যায়। এ ঘটনায় তিনি ২৯ জুলাই ঢাকার বাড্ডা থানায় সাধারণ ডায়রি করেন। একই সঙ্গে ৩১ জুলাই নীলাকে তালাক প্রদান করেন তিনি।
পরবর্তীতে ১৯ আগস্ট এ ঘটনায় তিনি ঢাকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পিটিশন মামলা দায়ের করেন (৮৫/২০২০। ওই মামলায় আদালতের নির্দেশে চেক উদ্ধারের জন্য তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রী নীলার বাসায় তল্লাশী করে পুলিশ।
উল্লেখ্য, নীলার বিরুদ্ধে একাধিক বিবাহ এবং বিবাহের নামে প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে এর আগে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রাক্তণ স্বামী মো. আব্দুল বাকী।