কোটালীপাড়ায় পুড়িয়ে ফেলা হলো নিষিদ্ধ চায়না ও কারেন্ট জাল

38
হৃদয় বিশ্বাস, কোটালীপাড়া থানা প্রতিনিধি
চায়না জাল। একে ম্যাজিক জালও বলা হয়। এসব জাল আসলে বিশেষ এক ধরনের ফাঁদ। ৫০ থেকে ৮০ ফুট লম্বা এ জাল ছোট ছোট খোপের মতো। খাল-বিল, নদী-নালা ও জলাশয়ে থাকা ছোট-বড় সব ধরণের মাছ এ জালে আটকা পড়ে।
গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান’র নির্দেশক্রমে উপজেলা মৎস্য অফিসের অভিযানে উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের লাটেঙ্গা বিলে থেকে সরকারিভাবে নিষিদ্ধ চায়না ম্যাজিক জাল ও কারেন্ট জাল জব্দ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এনে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।
কোটালীপাড়া উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আনিছুর রহমান প্রধান বলেন, প্রত্যেকটি বড় চায়না জাল বাজারে প্রায় আট হাজার এবং ছোট জাল সমূহ ৫শ টাকা করে বিক্রি হয়। সে হিসেবে উদ্ধারকৃত এসকল জালের আনুমানিক বাজার মূল্য ছিলো মেজিক জাল৬৪,০০০টাকা, কারেন্ট জাল ১৫,০০০ টাকা।
কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, জানা যায়, অসাধু জেলেরা ম্যাজিক জাল দিয়ে নির্বিচারে পোনাসহ সব ধরনের  মাছ শিকার করে। সেই সাথে ব্যাঙ ও সাপসহ বিভিন্ন জলজ প্রাণীও শিকার করে। সরকারিভাবে নিষিদ্ধ চায়না ম্যাজিক জাল কারেন্ট জাল ব্যবহারের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান চলমান রয়েছে ও অভিযান অব্যাহত থাকবে।