শনাক্তের হার ২৭.৩৯ ।। একদিনে আরও ১৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬২১৪

17

গত ২৪  ঘণ্টায় করোনায় আরও ১৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।  এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৪ হাজার ৯১২ জনে। নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে  ৬ হাজার ২১৪ জন।  মোট শনাক্ত ৯ লাখ ৩৬ হাজার ২৫৬ জনে দাঁড়িয়েছে। ২৪  ঘণ্টায়  ৩ হাজার ৭৭৭ জন এবং এখন পর্যন্ত ৮ লাখ ২৯ হাজার  ১৯৯ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন।
আজ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য  জানানো হয়েছে।
এতে আরো জানানো হয়, ৫৬৬টি পরীক্ষাগারে গত ২৪ ঘণ্টায় ২২ হাজার ৭০৩টি নমুনা সংগ্রহ এবং২২ হাজার ৬৮৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৬৬ লাখ ৯৩ হাজার ৬৮১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।
২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৯শতাংশ।
এদিকে বিভাগ ভিত্তিক শনাক্তের হার বিশ্লেষণে দেখা যায়, দেশের মোট শনাক্তের  ৫৪ দশমিক ১০ শতাংশ রোগী রয়েছেন ঢাকা বিভাগে। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন ৩৮ জন। শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৬২ জন। এই বিভাগে শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৭১ শতাংশ।

আগের দিনের চেয়ে ২ শতাংশের বেশি  রোগী বেড়েছে। ঢাকা জেলায় (মহানগরসহ) শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ১৮ শতাংশ। মারা গেছে ১৭ জন।

ময়মনসিংহ বিভাগে মারা গেছেন ৪ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৪৮ জন। শনাক্তের হার ২১ দশমিক ১১ শতাংশ। চট্টগ্রামে মারা গেছেন ১১ জন। এ বিভাগে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা  ৮৪৪ জন। শনাক্তের হার ২৫ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

রাজশাহীতে মারা গেছেন ২৩ জন। শনাক্ত হয়েছে ৪২৬ জন। শনাক্তের  হার ২২ দশমিক ৫০ শতাংশ।

রংপুর বিভাগে মারা গেছেন ১৫জন। শনাক্তের সংখ্যা ৫৩২জন। শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৫৫ শতাংশ।

খুলনা বিভাগে মারা গেছেন ৩৯ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫৩৯ জন। শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৫৬ শতাংশ।

বরিশাল বিভাগে মারা গেছেন ৩ জন। শনাক্তের সংখ্যা ১৬০  জন। শনাক্তের হার ৪৭ দশমিক ১৯ শতাংশ।

একই সময়ে সিলেট বিভাগে মারা গেছেন ১ জন। শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২০৩ জন। শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৮৯ শতাংশ।