অভয়নগরে সরকারি রাস্তা দখল ও বিকল্প রাস্তায় বাঁশের বেড়া

69
মেহেদী হাসান ইরান :
শুধু একটু সরকারি জায়গা দখলে নেওয়ার জন্য। প্রতিবেশিদের উঠে অন্য জায়গায় ঘর বেধে থাকার চাপ।প্রতিনিয়ত হুমকি,কথা বললে অপমান করা, কারনে অকারনে অকথ্য ভাষা ব্যবহার।  অথচ জায়গাটি এস এ এবং আর এস পর্চা ও ম্যাপে রয়েছে খোদ সরকারি রাস্তা,অথচ বাস্তবে রয়েছে গোয়ালঘর,রান্নাঘর ও টয়লেট। টয়লেটের গন্ধ,গোয়ালঘরের ময়লা, রান্না ঘরের ধোয়ায় বিষিয়ে তুলেছে একটি পরিবারকে। এরকম একটি পরিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেও কোন ফল পাইনি আজও। ঘটনাটি ঘটেছে অভয়নগর উপজেলার ৭ নং শুভরাড়া  ইউনিয়নের শুভরাড়ার শীতেরঘাট অঞ্চলের মৃত মোকাম সরদারের ছেলে অলিয়ার সরদারের বাড়ীতে। অলিয়ার সরদার জানালেন প্রতিপক্ষ  রাজনৈতিক দলের নেতাদের পকেটের লোক হওয়ায় মুখ খুলছেনা কেহ। অথচ তারা দ্বারে দ্বারে ঘুরে এখন ক্লান্ত। গতকাল  শনিবার সকাল ১১ টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে,মূলরাস্তায় রয়েছে বসত ঘর,গোয়াল ঘর, রান্নাঘর, সারিবাধা রয়েছে টয়লেট, যা স্বাস্থের জন্য মারাত্বক ঝুকি পূর্ণ। বিকল্প রাস্তা মজবুত করে ঘেরা। কিছুই ভিতরে প্রবেশ বা বাহির হবার কোন সুযোগ নেই। ঘটনাস্থলের পার্শ্বের এক প্রতিবেশী জানালেন সে ওয়ার্ড যুবলীগের নেতা হাফিজুরের স্ত্রী নিজেই তার শ্বাশুড়ীকে নিয়ে অলিয়ার সরদারের বাড়ীতে যাবার রাস্তা ঘিরে দিয়েছে। যুবলীগের এই নেতার স্ত্রী আরো জানালেন সরকারি রাস্তায় রান্নাঘর, গোয়াল ঘর ও টয়লেট রয়েছে যার জন্য ওলিয়ার দের নিজে জায়গা ছেড়ে দিয়ে, রাস্তার জায়গা দিয়েছে তারা। কিন্তু বেয়াদবি করার কারনে রাস্তা আটকিয়ে দিয়েছি আবার।সরেজমিনে দেখা গেছে যশোর জেলার অভয়নগর থানার ৭নং শুভরাড়া ইউনিয়নের ৩৪/৮১ নং শুভরাড়া মৌজার আর এস ১৮১ দাগটি একটি সরকারী রাস্তা,  পর্চার নকশা অনুসরে যার দৈর্ঘ্য ৪৫০ ফুট আর প্রস্থ ২২ ফুট। ভুক্ত ভুগি অলিয়ার সরদার বসবাস করে আর এস  ২০১ দাগের জমির উপর। যে জমির পার্শ্ব দিয়ে দখল হওয়া সরকারি রাস্তা রয়েছে।অন্যদিকে আর এস ১৮০ দাগের মালিক মোঃ বাবর আলি ও মোঃ সিরাজ  মোল্য, উভয় পিতা মৃত খোজদেল মোল্যা ওরফে রাঙ্গা,  উভয়  সাং শুভরাডা, উপজেলা – অভয়নগর, জেলা – যশোর। বর্তমানে উক্ত রাস্তার জমির উপর দিয়া বাথরুম টয়লেট,ও রান্না ঘর/গোয়াল ঘর তৈরী করিয়াছে বাবর আলি দিগর।  শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ভুক্তভুগি অলিয়ার সরদার প্রশাসনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করছিল।যুবোলীগ নেতা হাফিজুর রহমান জানালের আমাদের পারিবারিক সমস্য মিটিয়ে নিবো তবে আপনাদের নিউজ করার দরকার নেই। এবিষয়ে অভয়নগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন ভূক্তভূগির আবেদন তদন্তধীন রয়েছে,তদন্ত রির্পোট হাতে পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।