গণটিকা কার্যক্রম শুরু

18

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আজ শনিবার (৭ আগস্ট) থেকে সারাদেশে ইউনিয়ন পর্যায়ে ভ্যাকসিন ক্যাম্পেইন শুরু হচ্ছে। এই ক্যাম্পেইনে মূলত ২৫ বছর ও তদূর্ধ্ব জনগোষ্ঠী, নারী, শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং দুর্গম ও প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষকে করোনার টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে।

শুক্রবার (৬ আগস্ট) রাজধানীর মহাখালীতে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল বাশার মুহাম্মদ খুরশীদ আলম এসব তথ্য জানিয়েছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ৭ থেকে ৯ আগস্ট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম চালু থাকবে। ৮-৯ আগস্ট দুর্গম, প্রত্যন্ত অঞ্চলে কোভিড ১৯ এর টিকাদান কার্যক্রম চালু হবে।

তিনি আরও জানান, ১০ থেকে ১২ আগস্ট ৫৫ বছর বয়সী রোহিঙ্গাদের টিকা দেয়া হবে। ৭ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া টিকাদান কার্যক্রমে মূলত ২৫ বছর বয়সীদের এবং অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পঞ্চাশোর্ধদের টিকা দেয়া হবে।

১৮ বছর বয়সীদের টিকার আওতায় আনার বিষয়ে তিনি জানান, ১৮ বছর বয়সী সবার জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকায় টিকা দানের বয়সসীমা ২৫ করা হয়েছে।

কোভিড ১৯ মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে আরও বেশি সংখ্যক মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা প্রয়োজন বলে মনে করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।