কালুখালী উপজেলাকে করোনা মুক্ত এবং ক্ষুধা মুক্ত করার লক্ষ্যে জনগণের পাশে থেকেছি : অলিউজ্জামান

18
জুয়েল ডি সানি, চীফ রিপোর্টার
রাজবাড়ী কালুখালী উপজেলাকে করোনা মুক্ত এবং ক্ষুধা মুক্ত করার লক্ষ্যে জনগণের পাশে থেকেছি।
রাজবাড়ী জেলার বৃহৎপাংশা উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন নিয়ে কালুখালী উপজেলা গঠিত। ২০১০ সালের জুন মাসে কালুখালী উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু  হয়।কালুখালী উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান অলিউজ্জামান চৌধুরী টিটোর কাছে করোনা পরিস্থিতি জানতে চাইলে। তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হওয়ার পরেই করোনা বাংলাদেশে হানা দেয়।তার প্রভাব পরে তৃণমূল প্রযন্ত।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখহাসিনার নির্দেশ ক্রমে কাজ করেছি।জনগনকে সচেতন করেছি,ম্যাক্স বিতারন করেছি।হতদরিদ্র দের মাঝে এ্যান বিতারন করেছি।সরকারি সাহায্যের পাশাপাশি নিজের অর্থয়ানে ত্রান সামগ্রী জনগণের দারপ্রান্তে পৌঁছে দিয়েছি।  সরকার যথেষ্ট এান দিয়েছে জনগনকে।  আমার এলাকায় একটি লোক ও ক্ষুধায় কষ্ট পায় নি। তিনি আরো বলেন, আমার এলাকায় করোনা ভাইরাস তেমন কোন প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি। কারন আমরা জনগণকে সচেতন করতে পেরেছি।উন্নয়নের বিষয় জানতে চাইলে, তিনি  বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারনে আমরা উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে আছি।আমি যে উন্নয়নের  প্রতিশ্রুতি  জনগনকে দিয়ে ছিলাম তা করোনা পরিস্থিতির কারনে করতে পাড়ি নাই,তবে আশা আছে, করোনা পরিস্থিতি সাভাবিক হলে, এ-ই উপজেলার সার্বিক উন্নয়ন করে  কালুখালী উপজেলাকে একটি মডেল উপজেলায় রুপান্তরিত করবো।এবং যতদিন বাঁচবো জনগণের পাশে থেকে জনগণের সেবা করে যাবো।