খাবারের দাম বৃদ্ধিতে দিশাহারা খামারিরা

10
জুয়েল ডি সানি।।
বর্তমান পুষ্টির চাহিদা মিটাতে ব্যাপক ভুমিকা রেখেছে বাংলাদেশের পোল্ট্রি শিল্প।  বাংলাদেশের মাছ, মাংশ,ডিম,দুধ উৎপাদন  বেড়েছে বহুগুণ। এক কথায় বলতে গেলে মানব দেহের পুষ্টির চাহিদার সিংহ ভাগই আসে বাংলাদেশের পোল্ট্রি শিল্প থেকে।আর এ-ই পোল্ট্রি শিল্প ধংসের পথে যাচ্ছে শুধু মাএ ফিডের দাম বৃদ্ধির কারনে। বরিশালের উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে কিছু সংখ্যক খামারিদের কাছে সাফল্যের কথা জানতে চাইলে তারা cintv24 কে বলেন,মুরগীর খামার দিয়ে বর্তমানে খুবই লছে আছি।কারন বর্তমানে ২২০০+ খাবারের দাম,যা বিগত দিনে থেক খাবারের বস্তা প্রতি ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। যার কারনে এখন আমরা হিমশিম খেয়ে যাচ্ছি। তারপর আবার দাদনে টাকা এনে ব্যবসা করতে হয়,খাবারের দোকানে বাকী রেখে খাবার আনতে হয়।মেডিসিন হতে সুরু করে বর্তমানে সব কিছুর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।শুনেছি আরো দাম নাকি বাড়বে।কি হবে জানি না,তবে এ-ই ভাবে যদি দাম বাড়তে থাকে। তাহলে আমরা সর্বশান্ত হয়ে যাবো।
খামারিরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি তুলে ধরে বলেন, সরকার সব বিষয়ই লক্ষ্য দিচ্ছে যদি খামারিদের দিকে একটু লক্ষ্য দিতেন তা হলে আমরা যারা খামারি আছি তারা টিকে থাকতে পারতাম এবং সরকারের উচিৎ সবকিছু ক্ষতিয়ে দেখা।তাই আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।