মুন্সীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

19
আরিফুর রহমান সেতু ,সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার
তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মুন্সীগঞ্জ সদর ও টঙ্গীবাড়ী উপজেলার ২১টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ রোববার (২৮ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এর মধ্যে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে যারা বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন-
১. চরকেওয়ার ইউনিয়নে মো. আফছার উদ্দিন ভূইয়া (নৌকা)
২. মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে রিপন হোসেন পাটোয়ারি (নৌকা),
৩. বাংলাবাজার ইউনিয়নে মো.সোহরাব হোসেন পীর (নৌকা),
৪.মহাকালী ইউনিয়নে মো.শহিদুল ইসলাম (নৌকা),
৫. আধারা ইউনিয়নে মো. সোহরাব হোসেন বেপারি (নৌকা),
৬.শিলই ইউনিয়নে মো. পারভেজ মৃধা ( আনারস), ৭.বজ্রযোগনী ইউনিয়নে মো.তোতা মিয়া মুন্সী (আনারস),
৮.পঞ্চসার ইউনিয়নে হাজী মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা (আনারস),
৯. রামপাল ইউনিয়নে মো.বাচ্চু শেখ (ঘোড়া)।
 মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় ৯টি ইউনিয়নে ৫টিতে নৌকা ও ৪টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।
অপরদিকে, জেলার টঙ্গীবাড়ী উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন-
১. কামারখারা ইউনিয়নে মো. লুৎফর রহমান খুকু (আনারস),
২. কাঠাদিয়া শিমুলিয়া ইউনিয়নে আনিসুর রহমান (নৌকা),
৩. আব্দুল্লাপুর ইউনিয়নে মো. আব্দুর রহিম মিয়া (নৌকা),
৪. বালিগাঁও ইউনিয়নে হাজী মো. দুলাল (নৌকা),
৫. আড়িয়ল ইউনিয়নে মো. আব্দুল কাদির হাওলাদার (আনারস),
৬.আউটশাহি ইউনিয়নে মো. সেকান্দার বেপারি (নৌকা),
৭. বেতকা ইউনিয়নে মো.রোকনুজ্জামান সিকদার রিগ্যান (মোটর সাইকেল),
৮. ধীপুর ইউনিয়নে আক্তার হোসেন মোল্লা (আনারস),
৯.দিঘীরপাড় ইউনিয়নে মো. আরিফুল ইসলাম হালদার (নৌকা),
১০.হাসাইল-বানারী ইউনিয়নে মো. নুরুজ্জামান দেওয়ান (মটর সাইকেল)
১১. যশলং ইউনিয়নে ইসমাইল হোসেন বাবু (আনারস),
১২. সোনারং-টঙ্গিবাড়ী ইউনিয়নে মাঝি মো. বেলায়েত হোসেন (নৌকা)।
টঙ্গীবাড়ীতে ১২টি ইউনিয়নে ৬টিতে নৌকা এবং ৬টিতে স্বতন্ত্রপ্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।
তৃতীয়  ধাপে মুন্সীগঞ্জ সদর এবং টঙ্গিবাড়ী উপজেলার ২১টি ইউনিয়নে ২১১টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয় ভোট গ্রহণ। নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু করার জন্য নির্বাচনী মাঠে ৫জন বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্র্রেট, ১৪ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, ৪ প্লাটুন বিজিবি, ২ প্লাটুন র‌্যাব, পুলিশের ১৪টি মোবাইল টিম, ৫টি স্ট্রাইকিং ফোর্স ও ১টি রিজার্ভ টিম কাজ করেন। প্রতি কেন্দ্রে ৫জন পুলিশ ও ১৭ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করেন। ২১টি ইউনিয়নে আইনশৃংখলা বাহিনীর মোট ৪ হাজার ৩৫০ জন সদস্য ইউপি নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করেন।